1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
খোয়াই নদী থেকে মাটি ও বালু উত্তোলন, হুমকিতে ৩ ব্রিজ
শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন




খোয়াই নদী থেকে মাটি ও বালু উত্তোলন, হুমকিতে ৩ ব্রিজ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
    আপডেট : ১১ মে ২০২২, ৭:০১:১৫ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লস্করপুর মৌজার খোয়াই নদীর চর কেটে অপরিকল্পিতভাবে মাটি ও বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। দিন-দুপুরে প্রকাশ্যে নদী থেকে অবৈধভাবে বালি তোলায় হুমকির মুখে রয়েছে তিনটি ব্রিজ। ব্রিজগুলো হলো- ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রিজ, পুরাতন মহাসড়কের পুরানবাজার লৌহ ব্রিজ ও রেলওয়ে ব্রিজ।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, এ তিন ব্রিজের আশপাশ থেকে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা হবিগঞ্জের লস্করপুর মৌজা ও তার নিকটবর্তী স্থানের খোয়াই নদীর চর কেটে অপরিকল্পিতভাবে মাটি উত্তোলন করে বিক্রি করছেন। এতে নদীর বিভিন্ন স্থানে স্থানে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। প্রভাবশালীরা মাটি বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিলেও কয়েক কোটি টাকা মূল্যের ব্রিজ তিনটি হুমকির মুখে আছে। তার সঙ্গে নদীর বাঁধের ওপরও বিরাট প্রভাব পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। আর তাই এখনই মাটি উত্তোলন বন্ধে সঠিক পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

পুরাতন ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শায়েস্তাগঞ্জ পুরানবাজারে খোয়াই নদীর একটি লোহার ব্রিজ নির্মাণ করা হয়। এর থেকে প্রায় আধাকিলোমিটার দূরে আরেকটি ব্রিজ রয়েছে। ২০০১ সালে ওই ব্রিজটি দিয়ে গাড়ি চলাচল শুরু হয়। এছাড়া এই নদীর ওপর রয়েছে একটি রেল ব্রিজও।

জানা গেছে, কয়েকটি প্রভাবশালী চক্র তিন ব্রিজের আশপাশে খোয়াই নদী থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করছে এবং চর কেটে মাটি নিয়ে যাচ্ছে। এ কারণে ব্রিজের পিলার নিচ থেকে মাটি সরে যাচ্ছে। ফলে দিন দিন সেগুলো দুর্বল হয়ে হুমকির মুখে পড়ছে। ১৯৯৭ সালে পুরানবাজার এলাকার একটি ব্রিজ ভেঙে গেলে ওই এলাকার কয়েক লাখ মানুষ ভোগান্তিতে পড়েন।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল বলেন, তিন ব্রিজের বারোটা বাজিয়ে নদীর চর কেটে মাটি বিক্রি করে প্রভাবশালীরা। এটা কোনভাবেই মেনে নিতে পারছি না। এ ব্যাপারে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সড়ক বিভাগ হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ উপ-বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ রমজান আলী বলেন, ‘আমরা ব্রিজ ও সড়ক রক্ষায় কাজ করছি। কোনভাবেই ব্রিজের মাঝামাঝি স্থানের চর কেটে মাটি নেওয়া ঠিক হবে না। এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।’




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020