1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
জৈন্তাপুরে আ’লীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে মোবাইলফোন চোরাচালানের মামলা বিজিবি’র
রবিবার, ২৬ মার্চ ২০২৩, ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন




জৈন্তাপুরে আ’লীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে মোবাইলফোন চোরাচালানের মামলা বিজিবি’র

জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি :
    আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ৫:৩১:৫৬ অপরাহ্ন

জৈন্তাপুরে মোবাইল চোরাচালান উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দায়ের করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। মামলায় জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলীর ছেলে চিহ্নিত চোরাকারবারি মো. জয় আলী (২৫) ও উপজেলার নয়াবস্তি এলাকার বাসিন্দা মো. আসাদ উদ্দিনের (৩০) নামোল্লেখ করে চারজনকে আসামি করা হয়েছে। বিজিবির জৈন্তাপুরের শ্রীপুর ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার মকবুল হোসেন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার বিশেষ ক্ষমতা আইনে এ মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় শুল্ক ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে ভারত থেকে ১৯৪টি মুঠোফোন চোরাচালানের মাধ্যমে দেশে আনার অভিযোগ আনা হয়। মামলায় জয় ও আসাদ ছাড়াও অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে আরও দুজনকে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ৭ ফেব্রুয়ারি বিকেল পাঁচটার দিকে শ্রীপুর ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার মকবুল হোসেনসহ বিজিবির সদস্যরা চোরাচালান প্রতিরোধে শ্রীপুর এলাকায় বিশেষ টহল দিচ্ছিলেন। দায়িত্ব পালনকালে গোপন সংবাদ আসে উপজেলার মোকামপুঞ্জি এলাকা থেকে কয়েকজন ব্যক্তি চোরাচালানের মাধ্যমে গাড়িতে ভারতীয় মালামাল নিয়ে জৈন্তাপুরের দিকে যাচ্ছেন। সে সময় টহল দল জৈন্তাপুরের জাফলং ভ্যালি বোর্ডিং স্কুলের সামনে অবস্থান নেন।

এজাহারে দেওয়া বর্ণনা অনুযায়ী, বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে সিলেট-তামাবিল মহাসড়ক দিয়ে একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা এলে টহল দল সেটিকে থামার সংকেত দেন। তবে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাচালকসহ ভেতরে থাকা ব্যক্তিরা সড়কের পাশে সেটিকে রেখে পালিয়ে যান। এ সময় বিজিবির সদস্যরা তাঁদের পেছনে ধাওয়া দিলেও কাউকে আটক করতে পারেননি। একপর্যায়ে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের মাধ্যমে পলাতক ব্যক্তিদের মধ্যে দুজনের নাম–পরিচয় জানা যায়। পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অটোরিকশার কাপড়ের ব্যাগে রাখা ১৯৪টি ভারতীয় পুরোনো মুঠোফোন উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা মুঠোফোন এবং ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাটি জব্দ করা হয়। জব্দ মালামালগুলোর আনুমানিক বাজারমূল্য ৬০ লাখ ১৫ হাজার।

এর আগে লিয়াকত আলীর ছেলে জয় আলীসহ তিনজনকে গত বছরের ১৫ এপ্রিল সিলেটের শাহপরাণ থানা–পুলিশ ১০০টি ভারত থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে নিয়ে আসা মুঠোফোনসহ আটক করেছিল। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছিল।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ওমর ফারুক জানান, বিজিবির মামলার আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রয়েছে দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020