1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
তুরস্কে পৌঁছেছে বাংলাদেশের উদ্ধারকারীরা
সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩, ০৫:২৬ অপরাহ্ন




তুরস্কে পৌঁছেছে বাংলাদেশের উদ্ধারকারীরা

বাংলানিউজ এনওয়াই ডেস্ক :
    আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ৩:০১:৫৮ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উদ্ধারকারী দল ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ তুরস্কে পৌঁছেছে। শুক্রবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (মিডিয়া সেল) মো. শাহজাহান শিকদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, তুরস্কে উদ্ধার কাজের জন্য ফায়ার সার্ভিসের ১২ সদস্যের উদ্ধারকারী দল সেনাবাহিনীর উদ্ধারকারী দলের সঙ্গে বিমান জার্নি শেষে আদানা এয়ারপোর্টে পৌঁছেছেন। সেখান থেকে তারা ৩৫০ কিলোমিটার দূরে আদিয়ামান স্থানে বাসে করে রওনা হয়েছে। এর আগে বুধবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে উদ্ধারকারী দলটি তুরস্কের উদ্দেশে রওনা হয়।

এদিকে উদ্ধারকারী দলের সঙ্গে থাকা সাংবাদিক কেরামত উল্লাহ বিপ্লব ‘মিশন তুরস্ক : মিরাকলের অপেক্ষা’ শিরোনামে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, আদানা এয়ারপোর্টে নেমে বাসে আদিয়ামান প্রদেশে যাচ্ছি। ৬ ঘণ্টার পথ। ভয়াল ভূমিকম্প তুরস্কের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ১০ প্রদেশের অন্যতম আদিয়ামান। একটু আগে খবর এলো- সীমান্তের এই শহরগুলোতে পাওয়া লাশের সংখ্যা এখন প্রায় ২২হাজার। আরও কতো মানুষ ধংসস্তুপের নিচে আছে তা কেউই নিশ্চিত করে বলতে পারছে না। ১ কোটি মানুষ তাদের সব হারিয়েছে। এদের অনেকে এই মাইনাস ৭/৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার মধ্যে আগুন জালিয়ে অপেক্ষা করছে ভেঙেপড়া বাড়ির সামনে। অনেক বেঁচে থাকা পরিবার সদস্যদের নিয়ে থাকছে গাড়ির মধ্যে। তাদের ধারণা, নিশ্চয়ই চাপাপড়া ভবনের মধ্যে কেউ না কেউ এখনো বেঁচে আছেন। ভূমিকম্পের চার দিন পরও কোথাও কোথাও জীবিত উদ্ধারও হচ্ছেন কেউ কেউ। কী আশ্চর্য মিরাকল। এমন মিরাকলের অপেক্ষা করছে হাজারো মানুষ …।

এর আগে বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ১২টার দিকে এক ফেসবুক পোস্টে তিনি কয়েকটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘টয়লেট নেই, আসনবিহীন এমন ত্রাণ পরিবহন উড়োজাহাজে টানা ২৪ ঘণ্টা উড়ে নামলাম তুরস্ক-সিরিয়া সীমান্তের অচেনা শহর আদানায়। দশটি শহর বিধ্বস্ত হয়েছে ভূমিকম্পে এর আশপাশে। আগামী এক সপ্তাহ অভিযান এই জনপদে। প্রথম যাচ্ছি আদিয়ামান। ২৪ ঘণ্টা বিমান যাত্রার পর ৬ ঘণ্টা বাসে।’




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020