1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
নদীপথে অবৈধ চাঁদাবাজি বন্ধে দাবীতে ছাতকে সংবাদ সম্মেলন
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৩:২৭ পূর্বাহ্ন




নদীপথে অবৈধ চাঁদাবাজি বন্ধে দাবীতে ছাতকে সংবাদ সম্মেলন

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
    আপডেট : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৫২:৪৪ অপরাহ্ন

অবৈধ চাঁদাবাজদের বেপোরোয়া চাঁদাবাজির কারনে নদীপথে পরিবহন ব্যবসাও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ছাতক শাহপরান ইঞ্জিন নৌকা মালিক সমবায় সমিতিসহ ৮ ব্যবসায়ী সংগঠন।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শহরের নিজস্ব কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এ ঘোষনা দেন। অবৈধ ইজারা বাতিল করে চাঁদাবাজি বন্ধ না হলে ওইসব এলাকায় নদীপথে সব ধরনের নৌযান চলাচল ও মালামাল পরিবহন অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দেন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে, বর্তমান অর্থ বছরে ইতিমধ্যেই বিআইডব্লিটিএ কোম্পানীগঞ্জের রনিখাই হতে পারকুল ও দোয়ারাবাজার পর্যন্ত নদীপথে ইজারা দেয়া হয়। সম্প্রতি একই এলাকায় কোম্পানীগঞ্জের মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির নামে আরেক জনকে বিআইডব্লিটিএ সুনামগঞ্জের সহকারী বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা সুব্রত রায় স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে ইজারা প্রদান করা হয়।

পরিপত্রে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ধলাই নদীর পশ্চিম পাশে টুকের বাজার, পূর্ব পাশে ডকারপাড় ও লাউটিরপাড় হয়ে আরশি খাল পর্যন্ত নদীর উভয় পাড়ে উঠানামাকৃত মালামালের এলএসসি এবং নৌযানের বর্দিং চার্জ আদায় কেন্দ্র ঘাট-পয়েন্টটি স্পট কোটেশনে পরিচালনার কার্যাদেশ উল্লেখ করে অনুমোদন দেয়া হয়। ব্যবসায়ীদের অভিযোগ উল্লেখিত স্থানটি বালু মহাল বা কোয়ারী। যেখানে সরকারকে রাজস্ব দিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। ইজারা প্রদানের সরকারি বিধান অনুযায়ী প্রতিটি ইজারা এক অর্থবছরের জন্য দেয়া হয়ে থাকে। কিন্তু বিআইডব্লিটিএ সুনামগঞ্জের সহকারী বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা সুব্রত রায় এক মাসের জন্য একই এলাকা ইজারা প্রদান করেছেন। যা অবৈধ বলে মন্তব্য করেছেন ব্যবসায়ীরা।

ইজারাদারগন কোম্পানীগঞ্জের কাটাগাং হতে বিলাজুরের মধ্য স্থানে প্রতি নৌ-যান হতে ১০০০ থেকে ১৫০০ টাকা পর্যন্ত আদায় করছে। চাঁদা দিতে অপারগ হলে নৌ-যান শ্রমিকদের শারীরিকভাবেও লাঞ্চিত হতে হয় ইজারাদারদের হাতে। অবৈধ ইজারা বাতিল ও চাঁদাবাজি বন্ধের দাবী তুলে বক্তব্য প্রদান করেন, ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ফজলু মিয়া চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হাজী আবুল হাসান, ছাতক লাইমষ্টোন ইম্পোটার্স এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রুপের সেক্রেটারী অরুন দাস, ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক সামছু মিয়া, ছাতক বাজার একতা বালু উত্তোলন ও সরবরাহকারী ক্ষুদ্র সমবায় সমিতির সভাপতি সায়েদ আহমদ বাবলু, সহ সভাপতি নজরুল ইসলাম, ইউপি সদস্য শামছুল ইসলাম, লেবার সর্দার সমিতির সাবেক সভাপতি তজমুল আলী প্রমুখ।




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020