1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
প্রজ্ঞাপন জারি : ফের বাড়লো গ্যাসের দাম
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:০৩ অপরাহ্ন




প্রজ্ঞাপন জারি : ফের বাড়লো গ্যাসের দাম

বাংলানিউজ এনওয়াই ডেস্ক :
    আপডেট : ১৮ জানুয়ারী ২০২৩, ৮:৫৭:২১ অপরাহ্ন

আবারও গ্যাসের দাম বেড়েছে। ক্যাপটিভে (বড় শিল্পকারখানা) প্রতি ইউনিট ১৬ থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা এবং শিল্পখাতে প্রতি ইউনিট ১২ থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। ভর্তুকি সমন্বয়ে গ্যাসের নতুন এ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় প্রজ্ঞাপনে।

গত ১২ জানুয়ারি গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের খুচরা দাম পাঁচ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। এর এক সপ্তাহ না যেতেই বাড়ল গ্যাসের দাম।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, শিল্পে উৎপাদিত নিজস্ব বিদ্যুৎ কেন্দ্রের (ক্যাপটিভ) জন্য ইউনিট প্রতি গ্যাসের দাম ১৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। সারকারখানায় ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১৬ টাকা (ইউনিট প্রতি) অপরিবর্তিত থাকছে। মাঝারি শিল্পে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। ক্ষুদ্র ও কুটিরশিল্পে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১০ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। চা–বাগানের ক্ষেত্রে দাম ১১ টাকা ৯৩ পয়সা অপরিবর্তিত থাকছে। হোটেল ও রেস্তোরাঁ খাতে ব্যবহৃত বাণিজ্যিক শ্রেণির গ্রাহকেরা ফেব্রুয়ারি থেকে প্রতি ইউনিটে দাম দেবেন ৩০ টাকা ৫০ পয়সা। আগে তাঁরা দিচ্ছিলেন ২৬ টাকা ৬৪ পয়সা।

এর আগে গ্যাস সংকট নিয়ে গত কয়েক মাস ব্যবসায়ীদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। উৎপাদনের খরচ বাড়লেও শিল্প বাঁচাতে প্রতি ইউনিট গ্যাসের দাম ২৫ টাকা পর্যন্ত দিতে রাজি হন ব্যবসায়ীরা। তবে তারা নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহের নিশ্চয়তা চান। তারা বলেন, দাম বাড়িয়ে গ্যাস না দিলে শিল্প খাত ধ্বংস হয়ে যাবে। আর বিশ্ববাজারে দাম কমলে দেশেও সমন্বয় করতে হবে।

সরকারি-বেসরকারি বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য প্রতি ইউনিট গ্যাসের বর্তমান দাম ৫ টাকা ২ পয়সা। নতুন করে এই দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪ টাকা। এতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের খরচ বেড়ে যাবে।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) দুই কর্মকর্তা বলেন, গত ডিসেম্বর থেকে পাইকারি দাম বাড়ানোর পরও লোকসান করছে সংস্থাটি। সরকার এ বছর ১৭ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি বরাদ্দ রেখেছে। বর্তমান দামে কয়লা, জ্বালানি তেলসহ সব জ্বালানি পেলেও পিডিবির ঘাটতি হতে পারে ৪০ হাজার কোটি টাকা। এখন গ্যাসের দাম বাড়ায় তা আরও বেড়ে যাবে। তাই আবার বাড়তে পারে বিদ্যুতের দাম। দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনের ৫০ শতাংশের বেশি আসে গ্যাসচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে।




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020