1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
সমাধান হয় নি বৈঠকে : আজ থেকে সিলেটে পণ্য পরিবহন ধর্মঘট
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন




সমাধান হয় নি বৈঠকে : আজ থেকে সিলেটে পণ্য পরিবহন ধর্মঘট

স্টাফ রিপোর্ট::
    আপডেট : ৩০ অক্টোবর ২০২২, ৯:৩৮:২২ অপরাহ্ন

সিলেটে আজ সোমবার (৩১ অক্টোবর) থেকে ৪৮ ঘন্টার পরিবহন ধর্মঘট পালন করবে বিভাগীয় ট্রাক, পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। সকল পাথর কোয়ারি খুলে দেয়ার দাবিতে সোমবার ভোর থেকে এই ধর্মঘট পালন করা হবে। এতেও কাজ না হলে পুরো বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পণ্য পরিবহন ধর্মঘট শুরু করার হুশিয়ারী বিভাগীয় ট্রাক, পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের। ধর্মঘট সফলে রবিবার (৩০ অক্টোবর) দিনভর সিলেটে মাইকিং করা হয়েছে।

এদিকে, বিষয়টি নিয়ে রবিবার (৩০ অক্টোবর) বিকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে পরিবহন শ্রমিক নেতাদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তবে সে বৈঠকে ধর্মঘট বিষয়টির কোনো সমাধান হয়নি। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ‘শ্রমিক নেতারা ধর্মঘট প্রত্যাহারের আশ্বাস দিয়েছেন’ বলা হলেও শ্রমিক নেতারা বলছেন- ‘ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত বহাল রয়েছে।’

সিলেট বিভাগীয় ট্রাক, পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে বলা হয়,সিলেটের ভোলাগঞ্জ, বিছনাকান্দি, জাফলং এবং লোভাছড়া পাথর কোয়ারিগুলো থেকে বছরের পর বছর ধরে সারা দেশের পাথর সরবরাহ করা হয়ে আসছিল। প্রায় ১৫ লাখ ব্যবসায়ী-শ্রমিক ও পরিবহন মালিক-শ্রমিক এ পাথর বৈধ এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। কিন্তু দীর্ঘ প্রায় ৫ বছর ধরে কোয়ারি বন্ধ থাকার কারণে সিলেটের পরিবহন খাত- বিশেষ করে ট্রাক মালিক ও শ্রমিকরা পড়েছেন চরম সংকটে। ব্যবসায় পড়েছে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব। অধিকাংশ ট্রাক মালিক ব্যাংক ঋণ নিয়ে অথবা কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের শর্তে তাদের গাড়ি কিনেছিলেন। গত ৫ বছর ধরে কোয়ারি বন্ধ থাকার কারণে ট্রাক মালিকদের পণ্য পরিবহনে ভাটা পড়েছে। এই অবস্থায় শ্রমিকদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। ফলে বাধ্য হয়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন তাঁরা।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিভাগীয় ট্রাক, পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে রবিবার বিকাল ৪টায় বৈঠকে বসেন সিলেট জেলা প্রশাসক মো.মজিবুর রহমান। জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে পরিবহন শ্রমিক নেতাদের প্রতি ধর্মঘট প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হলেও নিজেদের সিদ্ধান্তে অটল থাকেন তারা। তবে জেলা প্রশাসন সূত্র বলছে- ‘বৈঠকে ধর্মঘট প্রত্যাহারের আহ্বানের পর এ ব্যাপারে আশ্বাস দিয়েছেন শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।’

এদিকে, জেলা প্রশাসনের সে দাবি প্রত্যাখ্যান করে সিলেট জেলা ট্রাক পিকআপ কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. দিলু মিয়া রবিবার সন্ধ্যায় বৈঠকের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘মাননীয় জেলা প্রশাসক আমাদের জানান- মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জিওগ্রাফিক্যাল সার্ভে এবং সম্ভাব্যতা যাচাই কমিটির প্রধান যুগ্ম সচিব নায়েব আলী মন্ডল বিদেশ সফরে রয়েছেন। আগামী ৩ নভেম্বর তাঁর দেশে আসার কথা রয়েছে। তিনি দেশে আসার পর পরই আমাদের সঙ্গে বৈঠক করা হবে এবং আমাদের দাবি বিবেচনায় নেওয়া হবে। তত দিন পর্যন্ত ধর্মঘট স্থগিত রাখার আহ্বান জানান জেলা প্রশাসক। কিন্তু এ আহ্বানের বিপরীতে বলি- আমরা এখনই কিছু বলতে পারছি না। নিজেদের মধ্যে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত জানাবো।’

কিন্তু জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বৈঠকের পর ট্রাক, পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দের সভায় মতামতের ভিত্তিতে ভোর থেকেই সিলেট জেলায় ২ দিনের টানা পণ্যবাহী পরিবহন ধর্মঘট শুরুর সিদ্বান্ত গ্রহণ করা হয়।

জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল হাসান বলেন- বিকেলে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পরিবহন শ্রমিক নেতারা ধর্মঘট প্রত্যাহারের ব্যাপারে আশ্বাস দিয়ে গেছেন। তবে পরে তারা নিজেদের মধ্যে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করলে আমরা এ বিষয়ে অবগত নই।




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020