1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
সিলেটে ওয়াসার কার্যক্রম দ্রুত চালুর দাবি
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৫০ অপরাহ্ন




সিলেটে ওয়াসার কার্যক্রম দ্রুত চালুর দাবি

স্টাফ রিপোর্ট::
    আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২২, ৭:৩৭:২১ পূর্বাহ্ন

প্রজ্ঞাপন জারির চার মাস অতিবাহিত হলেও সিলেটে কার্যক্রম চালু হয়নি ওয়াশার। ফলে সুপেয় পানির সঙ্কটে এখনও দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন সিলেট নগরবাসী। সিসিক বলছে, ওয়াশা গঠন হলেও বোর্ড গঠন ও নিয়োগ প্রক্রিয়া এখনও চূড়ান্ত করা হয়নি। তাই কার্যক্রম চালু করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে তাদের দাবি- শীঘ্রই বোর্ড গঠন ও নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

এর আগে সিলেটে দীর্ঘদিনের পানি সঙ্কট মোকাবেলায় গত মার্চে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে। জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সিসিক এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সিলেট ওয়াসা প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সিলেট ওয়াসা পরিচালনার লক্ষ্যে পানি সরবরাহ ও পয়ঃনিষ্কাশন কর্তৃপক্ষ আইন, ১৯৯৬ এর ৭ ধারা অনুযায়ী ওয়াসা বোর্ড গঠন এবং একই আইনের ২৮(১) ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত মহানগরীর পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সিটি করপোরেশন ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে বর্তমানের মতো পরিচালিত হবে। পরবর্তীতে আদেশ জারির মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে সিলেট মহানগরীর পানি সরবরাহ ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা সিলেট ওয়াসার কাছে হস্তান্তর করা হবে।

সিলেট দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি শহর। জনসংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি শহরও ক্রমশ বিস্তৃত হচ্ছে। বর্তমানে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৭ লাখ বাসিন্দা। আর এসব বাসিন্দাদের জন্য প্রয়োজন ৮ কোটি লিটার পানি। কিন্তু সিটি কর্পোরেশন সরবরাহ করতে পারছে ৬ কোটি লিটার। চাহিদার তুলনায় দীর্ঘদিন থেকে চলছে পানি সংকট।

এ ব্যাপারে সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতি, সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) ও সিলেট স্টেশন ক্লাবের সাবেক সভাপতি এমাদ উল্লাহ শহীদুল ইসলাম বলেন, সিলেটের নাগরিকদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল, পানি সরবরাহ ও নর্দমা ব্যবস্থাপনার জন্য আলাদা একটা কর্তৃপক্ষ গঠন করা হোক। তিনি বলেন, প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী সিলেট ওয়াসা প্রতিষ্ঠা হলেও এখনও শুরু হয়নি কার্যক্রম। তিনি ওয়াশা কার্যক্রম দ্রæত শুরু করে নগরবাসীর সুপেয় পানির ঘাটতি মোকাবেলায় ভূমিকা রাখার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানান।

তিনি বলেন, আমরা আশা করছি, সেবাদানে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে। তাই কেবল সেবার মান নয়, সবকিছুতেই আমূল একটা পরিবর্তন আসবে, এটা আমাদের প্রত্যাশা। এখনই আমরা নেতিবাচক কিছু বলতে রাজি নই। আমরা বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখছি। আমরা মনে করি, বিষয়টি বাস্তবায়িত হলে অনেক পরিবর্তন আসবে।

সিলেট সিটি করপোরেশনের চীফ ইঞ্জিনিয়ার নূর আজিজুর রহমান জানান, সিলেট ওয়াসা প্রতিষ্ঠা হলেও ওয়াসা বোর্ড গঠন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়োগ প্রক্রিয়াধিন রয়েছে। এর আগ পর্যন্ত নগরীর পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা বর্তমানের মতো পরিচালিত হবে। তিনি বলেন, ওয়াসা বোর্ড গঠন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়োগের প্রক্রিয়া চলমান। ওয়াসা গঠন হলে নগরীতে সুপেয় পানির সংকট দুর হবে।

 




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020