1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  3. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  4. mahmudbx@gmail.com : Monwar Chaudhury : Monwar Chaudhury
সুনামগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ!
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৬:১৫ অপরাহ্ন




সুনামগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
    আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২২, ৮:৩৮:৩৫ পূর্বাহ্ন

ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়ম,দুর্ণীতি ও দুর্ব্যবহারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। চেয়ারম্যানের স্বেচ্ছাচারিতা এবং অনিয়মের প্রতিবাদ জানিয়ে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন ভুক্তভোগী।

বন্যায় ত্রাণ সহায়তা প্রার্থীর সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করাসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে ইউনুস আলী চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। সোমবার (১ আগস্ট) জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ প্রদানকারী ভুক্তভোগীর নাম কালাম মিয়া। তিনি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের নালের বন্ধ গ্রামের বাসিন্দা

অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের নাম ইউনুস আলী। তিনি তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

লিখিত অভিযোগে আবুল কালাম উল্লেখ করেন, গত ১৬ জুন ভয়াবহ বন্যায় উপজেলার মানুষ চরম ক্ষতির শিকার হন। এই অবস্থায় দেশের বিশিষ্ট দানবীর ফরাজ করিম বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মধ্যে ঢেউটিন ও বাঁশ বিতরণের জন্য নাম তালিকাভুক্ত করেন। তালিকায় কালামের নাম থাকলেও চেয়ারম্যান তাকে না দিয়ে অন্যজনকে দিয়ে দেন।

এ বিষয়ে কালাম মিয়া চেয়ারম্যানের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে চেয়ারম্যান ইউনুছ আলী চরম দুর্ব্যবহার করে বলেন, ‘আমি থাকে ভোট না দেওয়ায় আমার ঢেউটিন ও বাঁশ আত্মসাৎ করেছেন। এছাড়াও হুঁশিয়ার করে বলেন, জানিস না পুরান খালাশ গ্রামের ইসলাম মেম্বারের ছেলেসহ কয়েকজন আমার অনিয়মের প্রতিবাদ করায় মেরে পিটিয়ে কি হাল করেছি ’।

এছাড়াও একতা বাজারে চেয়ারম্যান নিজস্ব অফিসে হলহলিয়া গ্রামের আব্দুল নূরকে ও নোয়া গাজীর ছেলে মুন্নাকে মারধর করে হাতপা ভেঙে দেশ ছাড়ার হুমকি দেন।

৮ নং ওয়ার্ড সদস্য হারুন মিয়াকে প্রকাশ্যে চেয়ারম্যান লাঞ্ছিত করেন। বন্যার সময় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য তিনশত প্যাকেট শুকনো খাবার আসলে তিনি আত্মসাৎ করেন। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ১০ হাজার টাকা বিতরণে অনিয়ম করলেও তার বিরুদ্ধে মুখ খোলার কেউ সাহস করেনি।

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়মের বিষয়ে যাচাই করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার দাবি জানান অভিযোগকারী কালাম।

এসব অভিযোগের বিষয়ে দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউনুস আলী তার বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, কালামের চেয়ে আরও বেশি গরিব লোককে সহায়তা দেওয়া হয়েছে এলাকাবাসীর অনুরোধে। কিন্তু তার সঙ্গে কোনো খারাপ আচরণ করা হয়নি। তাকে পিআইও অফিসে কথা বলে আংশিক ক্ষতির তালিকায় নাম দেওয়া হয়।




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020