1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. banglanews24ny@gmail.com : App Bot : App Bot
  3. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  4. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  5. islam_rooney@ymail.com : Ashraful Islam : Ashraful Islam
  6. rumelali10@gmail.com : Rumel : Rumel Ali
  7. Tipu.net@gmail.com : Ariful Islam : Ariful Islam
মানবপাচারের দায়ে যুক্তরাষ্ট্রে এক বাংলাদেশির কারাদণ্ড
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সিলেটে ইসকনের বিশাল সমাবেশ: সাম্প্রদায়িক অপশক্তি প্রতিরোধে সরকারকে এগিয়ে আসার আহবান বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে লাখাইয়ে শেখ রাসেলের জন্ম দিন পালিত দিরাইয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১: আহত অন্তত ৫০ শান্তিগঞ্জে যৌথ সহযোগিতায় হতদরিদ্রদের মধ্যে সবজির বীজ বিতরণ সুনামগঞ্জ যুবলীগের উদ্যোগে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন সিসিকে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালিত সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের উদ্যোগে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন শাহবাগে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের মানববন্ধন বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জে শেখ রাসেল দিবস ২০২১ উদযাপন সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে সিলেটে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল




মানবপাচারের দায়ে যুক্তরাষ্ট্রে এক বাংলাদেশির কারাদণ্ড

বাংলানিউজ এনওয়াই ডেস্ক
    আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪০:৩৯ পূর্বাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোহাম্মদ মিলন হোসেন (৪১) নামে এক বাংলাদেশির ৪৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আদালত। তার বিরুদ্ধে ম্যাক্সিকো থেকে যুক্তরাষ্ট্রে মানব পাচারে সহযোগিতা ও ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

আদালতে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগে বলা হয়, ২০১৭ সালের মার্চ মাস থেকে ২০১৯ সালের জুন মাস পর্যন্ত টাকার বিনিময়ে বাংলাদেশিদের তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্তে পারাপারের জন্য পৌঁছে দিতেন।

মিলন হোসেন ম্যাক্সিকোর তাপাচুলায় থাকতেন। তাপাচুলায় তিনি একটি হোটেলের ব্যবস্থা করেছিলেন, যেখানে যুক্তরাষ্ট্রপ্রত্যাশীদের রাখা হত। তারপর তাপাচুলা থেকে মন্টেরিতে যাওয়ার প্লেনের টিকিট ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসের যোগান দিতেন তিনি। মন্টেরি থেকে মিলন হোসেনের সহযোগী মোক্তার তাদেরকে অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ব্যবস্থা করতেন।

গত ২০১৯ সালের ৩১ আগস্ট টেক্সাসের হিউসটনে অবস্থিত জর্জ বুশ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে পৌঁছামাত্র মোহাম্মদ মিলন হোসেনকে (৪১) গ্রেপ্তার করা হয়। মিলন অর্থের বিনিময়ে টেক্সাস সীমান্ত দিয়ে কমপক্ষে ১৫ জন বাংলাদেশিকে যুক্তরাষ্ট্রে পাচার করেছেন বলে অভিযোগ ছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের আইন মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, মামলার প্রাথমিক শুনানির জন্য মিলনকে ৩ সেপ্টেম্বর টেক্সাসের সাউদার্ন ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট জাজ ডেনা এইচ পালমেরো’র আদালতে তোলা হয়। এতে মিলনকে আরো ফৌজদারি অপরাধের শুনানির জন্য আটক রাখতে নির্দেশ দেন বিচারক।

ওই বিবৃতি অনুযায়ী, মিলনের এক সহযোগী মোকতার হোসেন গত সপ্তাহে বাংলাদেশ থেকে অর্থের বিনিময়ে ১৫ জন বাংলাদেশিকে টেক্সাস সীমান্ত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে নেওয়ার অভিযোগ স্বীকার করেন মিলন মিয়ার ।

যুক্তরাষ্ট্রের আইন মন্ত্রণালয়ের ক্রিমিনাল ডিভিশনের সহকারী এটর্নি জেনারেল ব্রায়ান এ বেনজোওস্কি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে ঝুঁকির মুখে ফেলেছে মানব পাচারকারী চক্রগুলো। মিলনকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে একটি শক্ত বার্তা দেয়া হয়েছে যে, যেসব ব্যক্তি ব্যক্তিগত লাভের জন্য আমাদের জাতীয় অভিবাসন আইনের প্রতি ষড়যন্ত্র করবে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনতে বদ্ধপরিকর আইন মন্ত্রণালয়।

অন্যদিকে টেক্সাসের সাউদার্ন ডিস্ট্রিক্ট-এ যুক্তরাষ্ট্রের এটর্নি রায়ান কে প্যাট্রিক বলেছেন, আমাদের সীমান্তকে নিরাপদ করা হলো জাতীয় নিরাপত্তা ও আইন প্রয়োগকারীদের অগ্রাধিকার। মাঝে মধ্যে আমাদের সীমান্তকে অপকর্মে ব্যবহার করতে কিছু বেপরোয়া সংগঠন সহযোগিতা করে। এসব নিয়ে অনুসন্ধানী কাজ করে বহু এজেন্সি। তাদের এ কাজের কারণে এসব গ্রুপকে থামানো হয়েছে এবং বিদেশি অপরাধীদের বিচারের মুখোমুখি করা সম্ভব হয়েছে।




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020