1. sparkleit.bd@gmail.com : K. A. Rahim Sablu : K. A. Rahim Sablu
  2. banglanews24ny@gmail.com : App Bot : App Bot
  3. diponnews76@gmail.com : Debabrata Dipon : Debabrata Dipon
  4. admin@banglanews24ny.com : Mahmudur : Mahmudur Rahman
  5. islam_rooney@ymail.com : Ashraful Islam : Ashraful Islam
  6. rumelali10@gmail.com : Rumel : Rumel Ali
  7. Tipu.net@gmail.com : Ariful Islam : Ariful Islam
ভিসির সাম্রাজ্যে ভাই সম্রাট !
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৪৮ পূর্বাহ্ন




ভিসির সাম্রাজ্যে ভাই সম্রাট !

নীরব চাকলাদার
    আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০২১, ১২:২৭:১৪ পূর্বাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্রাট বাবর না হলেও সম্রাটের মতোই কদর পাচ্ছেন তিনি। সাম্রাজ্যের নাম সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। এর অধিপতি বড় ভাই। ফলে ভাইয়ের সাম্রাজ্যে ভাই সম্রাট হিসেবে শাসন করছেন এই প্রতিষ্ঠান। সাম্রাজ্যের মুকুটহীন এই সম্রাটের নাম বাবর চৌধুরী। পদ-পদবী না থাকলেও সাম্রাজ্য মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজিরা দিচ্ছেন তিনি নিয়মিত। ফায়দাও লুটছেন ইচ্ছেমতো।

অস্থায়ী ক্যাম্পাসে দাপ্তরিক কাজ খুব কম থাকলেও সেখানে নিয়মিত অফিস স্টেশনারী সরবরাহ করছেন ভিসি অধ্যক্ষ শেখ মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী এই গুনধর মামাতো ভাই বাবর চৌধুরী। অবশ্য এই প্রক্রিয়ায় কোনো দরপত্র আহবানের প্রয়োজনের বোধ করেননি সংশ্লিষ্টরা। ফলে মাসের পর মাস প্রয়োজন না থাকলে এই খাতে ২৫ হাজার টাকা করে নিচ্ছেন বাবর চৌধুরী। ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার নঈমুল হক চৌধুরীও সই করছেন ইনভয়েসে। অস্থায়ী ক্যাম্পাস শুরুর পর থেকে স্টেশনারী খাতে বাবর চৌধুরীর এই বাণিজ্য চলছে যথারীতি।

কর্মরত অনেকেই বিষয়টি জানলেও কারো মুখে ‘রা’ নেই। নাম না লেখার শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে দায়িত্বরত জনৈক কর্মচারী জানান, ভিসি এবং রেজিস্ট্রার স্যার অফিসে আসার আগেই নিয়মিত হাজির হন তিনি। কোথায় বসেন-এমন প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মচারী জানান, স্যারের নির্ধারিত আসন/চেয়ার/কক্ষ আসলে কোনটি ঠিক বলতে পারছি না। তিনি যেকোনো কক্ষেই বসেন এবং প্রতিষ্ঠানের তদারকি করেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী পরিচালক গোলাম সারোয়ার (অর্থ ও পরিকল্পনা) বলেন, বিষয়টি আমার জানার পর্যায়ে পড়ে না। আপনি এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার সাহেবের সাথে কথা বলতে পারেন।

অফিস স্টেশনারী সরবরাহের বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন বাবর চৌধুরীও। তবে ২৫ হাজার টাকার ভিতরে বিল হলে সেক্ষেত্রে দরপত্র আহবানের প্রয়োজন পড়ে না বলে তিনি জানান। অফিস স্টেশনারী খাতে ২৫ হাজার টাকা করে গেল দুই বছরে কতোবার বিল নিয়েছেন-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এগুলো মনে নেই’।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যক্ষ শেখ মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী এবং রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) নঈমুল হক চৌধুরীর সেলফোনে কল করা হলেও ফোন রিসিভ না করায় মন্তব্য আদায় করা সম্ভব হয়নি।

 




খবরটি এখনই ছড়িয়ে দিন

এই বিভাগের আরো সংবাদ







Copyright © Bangla News 24 NY. 2020